পরীক্ষকের নিয়মাবলী

১) পরীক্ষক নিযুক্তিকরণের আগে লিখিত এবং মৌখিক পরীক্ষা গ্রহন করা হয় ।

২) পরীক্ষক হওয়ার জন্য স্নাতক অবধি পড়াশোনা ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে সপ্তম বর্ষ অবধি ডিপ্লোমা বা সার্টিফিকেট থাকা দরকার ।

৩) কোনও পরীক্ষককে কোনো বিদ্যালয়ে ক্রীয়াত্মক পরীক্ষা গ্রহনের জন্য নিযুক্ত করার পূর্বে ‘সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র’- এর পক্ষ থেকে জানানো হবে । পরীক্ষাকেন্দ্রের নাম এবং পরীক্ষার তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে ।

৪) যেহেতু ‘সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র’-এর পক্ষ থেকে আমরা সকল কেন্দ্রাধ্যক্ষকে কথা দিয়ে থাকি ব্যবহারিক পরীক্ষার ৬০ দিনের মধ্যে পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে, সেহেতু পরীক্ষার পর ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা ও কাগজপত্র আমাদের হাতে দ্রুত আসা প্রয়োজন । তাই সকল পরীক্ষককে জানানো হচ্ছে যে, পরীক্ষা গ্রহনের ১০ দিনের মধ্যে অতি অবশ্যই আমাদের অফিসে এসে পরীক্ষার কাগজপত্র দিয়ে যেতে হবে অথবা পোস্টের মাধ্যমে পাঠাতে হবে । ১০দিনের মধ্যে কাগজপত্র না পাঠালে কোনও পরীক্ষককেই পোস্টাল চার্জ বা স্পেশাল চার্জের টাকা দেওয়া হবে না ।

৫) প্রত্যেক পরীক্ষককে অঙ্কনের পরীক্ষার সমস্ত আর্ট-শীট কেন্দ্রের অফিসে পাঠাতে হবে । আর্ট-শীট না পাঠালে পোস্টাল চার্জ দেওয়া হবে না ।

৬) অ্যাডমিট কার্ড না আনলে পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষায় বসতে দেবেন না ।

৭) অঙ্কন পরীক্ষার ক্ষেত্রে পরীক্ষক আর্ট-শীট দেবার আগে সই করে দেবেন এবং খাতা জমা নেওয়ার সময় সেই সই মিলিয়ে নেবেন । মনে রাখবেন পরীক্ষার্থীরা যাতে অসৎ উপায়ে পরীক্ষা না দিতে পারে তার জন্য এই নিয়মটি করা হয়েছে ।

৮) ব্যবহারিক পরীক্ষা চলাকালীন কোনও পরীক্ষার্থী বিশৃঙ্খলা করলে অথবা অসংযত আচরণ করলে পরীক্ষক তার পরীক্ষা অবশ্যই বাতিল করতে পারেন ।

৯) পরীক্ষা নিতে যাওয়ার সময় পরীক্ষক কেবলমাত্র নিজেই যাবেন । বিশেষ প্রয়োজনে সর্বাধিক আরো একজনকে সঙ্গে নিয়ে যেতে পারবেন । কিন্তু যাতায়াতের খরচ বাবদ কেন্দ্র শুধুমাত্র পরীক্ষকের খরচই বহন করবে ।

১০) পরীক্ষার দিন পরীক্ষকের আতিথেয়তা বাবদ কেন্দ্রাধ্যক্ষ যাতে অধিক ব্যয়ভারের মধ্যে না পড়েন সেদিকে পরীক্ষককে অতি অবশ্যই নজর রাখতে হবে ।

১১) পরীক্ষকগণ অতি অবশ্যই ছাত্রছাত্রীদের দিয়ে নির্দিষ্ট শীট-এ সই করাবেন । যথাযথ সই না করলে সেই ছাত্র বা ছাত্রী অনুপস্থিত বলে গণ্য করা হবে । ছাত্রছাত্রীদের দেওয়া নম্বর আমাদের দেওয়া রেজাল্ট শীট ছাড়া অন্য জায়গায় বসানো চলবে না ।

১২) পরীক্ষা শুরু হওয়ার অন্তত ৩০মিনিট আগে পরীক্ষককে পরীক্ষাকেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে । পরীক্ষকের কোনও মতেই দেরি করে পৌঁছানো চলবে না ।

১৩) প্রত্যেক পরীক্ষককে জানানো হচ্ছে যে, পরীক্ষক-রুপে নিযুক্ত করার সময় তাঁদের একটি বিল ও ভউচার দেওয়া হবে । আপনার পরীক্ষা নিতে যাওয়ার যাবতীয় খরচ সেই বিলে পূরণ করে এনে জমা করবেন এবং বিল ও ভাউচার উভয়েই সই করবেন । পরবর্তী শিক্ষাবর্ষের ফর্ম জমা দেওয়ার সময় এটি জমা করবেন এবং পরীক্ষা নেওয়ার খরচ সংস্থাই পরীক্ষককে দিয়ে থাকে ।

১৪) পরীক্ষা নিতে যাওয়ার সময় প্রত্যেক পরীক্ষককে মনে রাখতে হবে যে, তাঁরা ‘সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র’-এর নিযুক্ত পরীক্ষক হয়েই পরীক্ষা নিতে যাচ্ছেন । তাই তাঁদের আচরন ‘সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র’ –এর সাথে সরাসরি সম্পর্ক-যুক্ত । তাঁদের প্রতিটি ভালো বা মন্দ আচরণের প্রভাব সরাসরি সংস্থার উপর প্রভাব ফেলবে । তাই প্রত্যেক পরীক্ষকের কাছে আবেদন এই যে, আপনাদের নিয়ে গড়ে তোলা এই সাংস্কৃতিক সংস্থার সুনাম বজায় থাকে এবং আগামী দিনে বৃদ্ধি পায় তার জন্য আন্তরিক প্রচেষ্টা করুন । যে সুনাম ‘সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র’ আপনাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আজ দেশের বুকে অর্জন করেছে তা বজায় রাখাও আপনাদের কর্তব্য । তাই পরীক্ষা গ্রহন করতে গিয়ে অনুগ্রহ করে এমন কোনও কাজ বা আচরণ করবেন না যাতে এই সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে মানুষের মনে কোনও খারাপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় । আমরা এই বিষয়টি প্রত্যেক পরীক্ষককে অত্যন্ত সচেতনভাবে লক্ষ্য রাখার জন্য আবেদন রাখছি ।

আমাদের ওয়েবসাইটে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ

মোবাইল থেকে ব্যবহার করছেন?

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

কপিরাইট © সুরভারতী সঙ্গীত কলাকেন্দ্র